Connect with us

অন্য মিডিয়া

গানের জগতে বাবা-ছেলে

Published

on

ফেরদৌস ওয়াহিদ-হাবিব ওয়াহিদ

সৃজন মিউজিক ডেস্ক :

বেতার, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের অসংখ্য গানের শিল্পী মো. রফিকুল আলম। তাঁর গাওয়া অনেক গানই পেয়েছে জনপ্রিয়তা। গাইছেন চার দশকেরও বেশি সময় ধরে। স্ত্রী আবিদা সুলতানা গান করেন। ছেলে ফারশীদ আলমও গানের মানুষ। ব্যান্ড ‘পেন্টাগন’, ‘বোহেমিয়ান’ ও ‘ফোরটিনথ ফ্লোর’-এ কাজ করেছেন ফারশীদ। এখন নিজেই একটি ব্যান্ড গড়ছেন। কিছুদিন পর ব্যান্ডটির নাম ঘোষণা করবেন এবং অ্যালবামের কাজে হাত দেবেন। এখন পর্যন্ত বাপ-বেটা মিলে একটি গানেই কণ্ঠ দিয়েছেন। ‘ছোট্ট পাখি’ শিরোনামের সে গানটির সুরকার বাপ্পা মজুমদার। বছর পাঁচেক আগে এনটিভির ঈদের একটি অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারিত হয়। রফিকুল আলম বলেন, ‘আমার আর ফারশীদের গানের ধরন ভিন্ন। তবে তার মিউজিক জ্ঞান আমাকে মুগ্ধ করে। সব গানই অত্যন্ত পরিছন্ন এবং অনুভব করার মতো। বিভিন্ন আড্ডায় বাপ-ছেলে একসঙ্গে গান করি। এটা অন্য রকম এক অনুভূতি।’ ফারশীদ বলেন, ‘আর সবার মতো আমিও বাবার গানের একজন শ্রোতা। কিভাবে গায়কির উন্নতি করতে হয়, এটা বুঝতে পারি বাবাকে দেখে। তাঁর গায়কির মধ্যে এমন কিছু সূক্ষ্ম কাজ থাকে, যা গানকে অনেক সমৃদ্ধ করে। আমি তাঁর কাছে সব সময়ই শেখার চেষ্টা করি।’ ফারশীদ আরো জানান, নতুন দু-তিনটি গান সুর করছেন তিনি, যেগুলোতে তাঁর সঙ্গে বাবা রফিকুল আলমও কণ্ঠ দেবেন।

ফাহিম হোসেন চৌধুরী-আমিদ হোসেন চৌধুরী

রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী ফাহিম হোসেন চৌধুরী সংগীতজীবনের ৫০ বছর পার করেছেন। বেতার-টেলিভিশনের নিয়মিত এই শিল্পী এখন পর্যন্ত মাত্র দুটি একক অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন। ‘দোস্ত দুশমন’ ছবির টাইটেল গানে আলাউদ্দিন আলীর সুরে খুরশিদ আলমের সঙ্গে শোনা গেছে তাঁর কণ্ঠ। ছেলে আমিদ হোসেন চৌধুরীও বাবার পথ ধরেই এগিয়ে চলছেন। মূলত ‘বাংলাদেশী আইডল’ প্রতিযোগিতা দিয়ে মিডিয়ার নজরে আসেন আমিদ। এখন পর্যন্ত দুটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করেছেন—‘হোল্ড মি ডাউন’ ও ‘মেঘ নীল’। কাজ করছেন প্রথম একক অ্যালবামের। বাবার দ্বিতীয় একক ‘দখিন দুয়ার’ (২০১৪)। কয়েকটি গানের সঙ্গে গিটার বাজিয়েছেন আমিদ। সামনে দুজন একসঙ্গে কণ্ঠ দেবেন রবীন্দ্রনাথের ‘আমি চিনি গো চিনি’ ও ‘পুরনো সেই দিনের কথা’ গান দুটির সমন্বয়ে তৈরি একটি কম্পোজিশনে। বর্তমানে এটির ট্র্যাক তৈরির কাজ চলছে ভারতে। আগামী বছরই ভিডিও আকারে প্রকাশ করা হবে। আমিদ বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল বাবার সঙ্গে একটি গানে কণ্ঠ দেওয়ার। এবার সেই স্বপ্নটি পূরণ হচ্ছে ভেবে ভালো লাগছে।’

ছেলের গান খুব পছন্দ করেন ফাহিম হোসেন চৌধুরী। সব সময় ছেলের উদ্দেশে বলেন, ‘যেকোনো ধরনের মিউজিকই ভালো। তবে শুনতে যেন শ্রুতিমধুর লাগে।’ অবশ্য ঠাণ্ডা মেজাজের গান করার জন্য ছেলেকে বেশি উৎসাহ দেন তিনি। আমিদ বলেন, ‘আমার গানের শুরুটা কিন্তু বাবাকে দেখেই। তিনি শুধু আমার বাবাই নন, আমার জীবনের আদর্শ, সংগীতের পথে অনুপ্রেরণা। তাঁর সঙ্গে আরো অনেক কাজ করার স্বপ্ন দেখি।’

ফেরদৌস ওয়াহিদ-হাবিব ওয়াহিদ

বেতার, টেলিভিশন, প্লেব্যাক, অডিও—সব মাধ্যমেই গাওয়ার অভিজ্ঞতা আছে ফেরদৌস ওয়াহিদের। তাঁর কয়েকটি গান শ্রোতার মুখে মুখে। তাঁর ছেলে হাবিব ওয়াহিদ তো সংগীতাঙ্গনের জনপ্রিয় নাম। গায়ক হাবিব ওয়াহিদের চেয়ে সংগীত পরিচালক হাবিব ওয়াহিদের কদর আরো বেশি। ২০০৮ সালে ‘অবশেষে’ শিরোনামের একটি দ্বৈত অ্যালবাম করেন বাপ-বেটা। তবে সেখানে একসঙ্গে কোনো গানে কণ্ঠ দেনটি তাঁরা। ১৯৭৭ সালে ফেরদৌস ওয়াহিদ ও তাঁর ভাই খসরু ওয়াহিদ ‘তোরা প্রেম করিস না, জীবনে ভালবাসিস না’ শিরোনামের একটি গানে কণ্ঠ দেন। সেই গানটিতে নতুন সংগীতায়োজনে কণ্ঠ দেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন তাঁরা। সময়-সুযোগ বুঝে প্রকাশ করবেন। ফেরদৌস ওয়াহিদ পরিচালিত ছবির জন্য গান করেছেন হাবিব। দেশ-বিদেশের বেশ কিছু স্টেজ শোতে একসঙ্গে গেয়েছেন দুজন। সামনে একসঙ্গে আরো অনেক কাজ করার ইচ্ছা তাঁদের।

ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, ‘আমি যখন স্টুডিওতে গান প্র্যাকটিস করতাম, ছোট্ট হাবিব তখন স্টুডিওতে এসে দুষ্টুমি করত। সেই হাবিবই এখন এ প্রজন্মের প্রতিষ্ঠিত সংগীত পরিচালক। তাঁর সঙ্গে আমি নিজেও কাজ করেছি। আমার মনে হয়, এটা আল্লাহর রহমত।’ আরো বলেন, ‘এককথায় বলতে গেলে আমি হাবিব ওয়াহিদের একজন ফ্যান।’ হাবিব ওয়াহিদ বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই বাবার গান শুনে আসছি। তাঁর গানের মধ্যে অন্য রকম একটা ব্যাপার আছে। বাপ-ছেলে একসঙ্গে গান করার মধ্যে কী যে আনন্দ, বলে বোঝাতে পারব না।’

মোখলেছুল ইসলাম নীলু-ফাহিম ইসলাম

তিন যুগেরও বেশি সময় ধরে গানের সঙ্গে আছেন আধুনিক গানের শিল্পী মোখলেছুল ইসলাম নীলু। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারের তালিকাভুক্ত এই শিল্পী ছয়টি একক অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন। গেয়েছেন অনেক অনুষ্ঠানে। বাবাকে দেখে ছেলে ফাহিম ইসলামও গানে এসেছেন। এখন পর্যন্ত তিনটি একক অ্যালবাম—‘ব্যস্ত’, ‘কেনো বলো না’ ও ‘বলছি তোমায়’ প্রকাশ করেছেন ফাহিম। গেয়েছেন কয়েকটি মিক্সডে। ফাহিমের কয়েকটি মিউজিক ভিডিও রয়েছে। বাপ-বেটা দুজনে একসঙ্গে এখন পর্যন্ত একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। ‘সত্যি করে’ শিরোনামের গানটি ২০১০ সালে ফাহিমের দ্বিতীয় একক ‘কেনো বলো না’তে প্রকাশিত হয়। টিভি অনুষ্ঠানেও গানটি গেয়েছেন তাঁরা। সামনে দুজন মিলে আরেকটি গান করার পরিকল্পনা করেছেন।

মোখলেছুল ইসলাম নীলু বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে আছি। আমাকে দেখে দেখে ফাহিমও গানের জগতে চলে এসেছে। তার অনেক গানই আমার পছন্দ।’

ফাহিম ইসলাম বলেন, ‘আমার গানের অনুপ্রেরণা বাবা। তিনি সব সময়ই বিভিন্নভাবে পরামর্শ দেন, ভালো গান করার তাগিদ দেন। এখনো তিনি নিয়মিত প্র্যাকটিস করার চেষ্টা করেন। এ বিষয়টি আমার খুব ভালো লাগে। সবচেয়ে মজা লাগে তাঁর রেকর্ডিং দেখতে। এক টেকেই তাঁর গান রেকর্ড হয়ে যায়। কখনো কখনো এমনও হয়, যেটা ডেমো দিলেন সেটাই ফাইনাল হয়ে গেছে।
–কালেরকণ্ঠ থেকে

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Dhaka Attack Unreleased Song

Advertisement
কাজী শুভর গানে কলকাতার পল্লবী কর ও প্রেম কাজী
সৃজন মিউজিক11 months ago

কাজী শুভর গানে কলকাতার পল্লবী কর ও প্রেম কাজী (ভিডিও)

Praner Giutar
নতুন গান2 years ago

ভালোবাসা দিবসে দুই বাংলার মিশ্রণে ‘প্রাণের গীটার’

প্রাণের গীটার
নতুন গান2 years ago

মাহফুজ ইমরানের‌ এক বছরের সাধনার ফসল ‘প্রাণের গীটার’ (ভিডিও)

কণ্ঠশিল্পী শাহজাহান শুভ
সৃজন মিউজিক2 years ago

শাহজাহান শুভ’র ‘কথামালা’ গান অন্তর্জালে

ওমরসানী, শাকিব খান ও জায়েদ খান
বিনোদন2 years ago

শাকিব খানের কাছে ক্ষমা চাইলেন জায়েদ খান

নতুন গান2 years ago

রোহিঙ্গাদের নিয়ে গান গাইলো অবস্‌কিওর

সৃজন মিউজিক2 years ago

প্রকাশ হলো ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির অরিজিত সিংয়ের সেই গান

ব্যান্ড সঙ্গীত2 years ago

শাকিরার নতুন মিউজিক ভিডিও ‘পেরো ফিয়েল’

মিউজিক ভিডিও2 years ago

তানজীব সারোয়ারের নতুন গান

মিউজিক ভিডিও2 years ago

ইউটিউবে কুমার বিশ্বজিতের নতুন গান ‘জোছনার বর্ষণে’

Trending